নগদ একাউন্ট থেকে যেকোন ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার করুন খুব সহজে

Hello বন্ধুরা, আপনার কেমন আছেন। আসা করি আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন। আজ আমরা নগদ নিয়ে কথা বলবো। ডাক বিভাগের নিজস্ব সবচেয়ে সেরা মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিসটি হলো নগদ। খুব অল্প সময়ের নগদ মানুষের মাঝে জায়গা করে নিয়েছে। নগদের মাধ্যমে অনেক তাড়াতাড়ি এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় টাকা পাঠাতে যায় এবং খুব অল্প খরচে। 

Nagad to bank card money transfer very easy way

নগদের মাধ্যমে মোবাইল টু মোবাইল টাকা লেনদেন করার পাশাপাশি এখন যে কোন ব্যাংকের কার্ডে টাকা পাঠানো যায়। আজ আমরা এই আর্টিকেলে নগদ একাউন্ট থেকে যেকোন ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার করার নিয়ম এবং কত খরচ হতে পারে তা খুব সহজে প্র্যাটিকেল আকারে বিস্তারিত জানতে পারবেন। তো আর্টিকেলটা সম্পূর্ণ পড়লে আপনি একটু হলেও উপকৃত হবে।  

নগদ থেকে ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার করার নিয়ম

নগদ ব্যবহারকারীরা এখন আপনার নগদ অ্যাপ থেকে ট্রান্সফার মানি অপশনে গিয়ে খুব সহজে আপনার নগদ পার্সোনাল একাউন্ট থেকে যেকোন ব্যাংকের কার্ডে টাকা ট্রান্সফার করতে পরবেন যা আপনার ব্যাংক একাউন্টে জমা হবে। এই পদ্ধতি ব্যবহার আগে মনে রাখবেন যে যেকোন ব্যাংক একাউন্টে টাকা পাঠানোর জন্য একটা নিদিষ্ট ফি প্রদান করতে হবে। 

তো চলুন এখন কিভাবে কার্ডে টাকা ট্রান্সফার করবেন তা প্র্যাটিকেল আকারে ধাপে ধাপে নিচে দেওয়া হলোঃ

Step - 1: আপনার নগদ অ্যাপসটি ওপেন করুন এবং সার্ভিস সমূহ থেকে ৫ নাম্বার অপশেন থেকে ট্রান্সফার মানিতে ক্লিক করুন।  

Step - 2: ট্রান্সফার মানিতে ক্লিক করার পর আপনি ব্যাংক কার্ড সিলেক্ট করবেন। নিচের ছবিতে দেখানো অপশেনটা ফলো করুন।

 
Step - 3: আপনার ভিসা কার্ডের নাম্বারটা দিয়ে Proceed বাটনে ক্লিক করুন। অবশ্যই মনে রাখবেন ২ মিনিটের ভিতর কাজটা সম্পন্ন করতে হবে।    

এইবার আপনি  proceed বাটনে ক্লিক করার পর আপনি কত টাকা কার্ডে জমা করতে চান তার পরিমান লিখে Next বাটনে ক্লিক করবেন। আপনি সর্বনিম্ন ১০ টাকা থেকে শুরু করে ২৫ হাজার টাকা প্রতি দিন আপনার কার্ডে পাঠাতে পারবেন। আর মাসে ২ লক্ষ টাকা ব্যাংক হিসাবে জমা করতে পারবেন। 

তারপর আপনার নগদ একাউন্ট এর পিন নাম্বারটি দিয়ে পেমেন্ট করে দিবেন। টাকা পাঠানোর কিছুক্ষনের মধ্যেই আপনার কার্ডে টাকা জমা হয়ে যাবে। আপনার ঐ কার্ডের সাথে যেই ব্যাংক একাউন্ট আছে তার মোবাইল নাম্বারে একটা মেসেজে চলে আসবে যে টাকা জমা হয়েছে। যদি টাকা কিছুক্ষেনের মধ্যে না আসে তাহলে চিন্তা করবেন না তিন দিনের মধ্যেই অবশ্যই আপনার টাকা জমা হয়ে যাবে।         

নগদ থেকে ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার চার্জ কত

বাংলাদেশের যেকোন মোবাইল ব্যাংকিং সেবা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ব্যাংকের কার্ডে টাকা পাঠানোর সময় একটা ট্রান্সফার ফি দিতে হয়। নগদ একাউন্ট থেকে কার্ডে টাকা ট্রান্সফার করার জন্য আপনাকে ১.৫% ট্রান্সফার ফি প্রদান করতে হবে। ধরেন আপনি নগদ একাউন্ট থেকে ১০০০ টাকা ব্যাংকে পাঠাবেন তার জন্য আপনাকে প্রতি হাজারে ১৫ টাকা ট্রান্সফার ফি দিতে হবে। 

নগদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে তাদের যত প্রকার ফ্রি আছে তা আপনি গননা করতে পারবেন। আমি নিচে নগদ টু কার্ডে টাকা পাঠাতে কত খরচ লাগতে পারে তার একটা ছবি দিয়ে দিচ্ছি। 


নগদ দেশের মানুষের জন্য অনেক কম টাকায় মোবাইল টু মোবাইল ব্যাংকিং সেবা দিয়ে যাচ্ছে। যার ফলে যদি আমি অন্য মোবাইল ব্যাংকিং সেবার তুলনা করি তাহলে নগদ তাদের তুলনায় অনেক কম রেটে টাকা ট্রান্সফারের সুযোগ করে দিয়েছে।   

নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম

ইতিমধ্যে আপনারা যারা নগদ একাউন্ট খুলে ফেলেছেন তারা তারা নিশ্চয়ই Nagad balance check বা নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে যাচ্ছেন। আপনি যদি নগদ একাউন্ট এর ব্যালেন্স চেক সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে এই আর্টিকেলটা সম্পূর্ণ পড়ুন। 

নগদে টাকা দেখার নিয়ম এই কিওয়ার্ডটা লিখে যারা গুগলে সার্চ করতেছেন তদের জন্য আমি দুইটা পদ্ধতির মাধ্যমে নগদের ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম সম্পূর্ণ প্র্যাটিকেল আকারে নিচে দিয়ে দিয়েছি। 

USSD কোড দিয়ে নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম

নগদ একাউন্ট দেখার জন্য সর্বপ্রথম পদ্ধতি হলো USSD কোড ব্যবহার করে। আপনি যদি একটি ছোট কোডের মাধ্যমে নগদ একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখতে চান তাহলে নিচের উল্লেখিত নিয়মটা ফলো করুন। কিভাবে করবেন তা নিচে ছবির মাধ্যমে ধাপে ধাপে দেখানো হয়েছে।       

Step-1: প্রথমে আপনার ডায়েল প্যাডে গিয়ে * 167# এই কোডটা যে সিমে নগদ একাউন্ট আছে সেখানে ডায়েল করবেন অথবা কল করবেন।   


Step - 2: অনেকগুলো অপশেন দেখতে পাবেন সেখান থেকে 7 লিখে Send বাটনে ক্লিক করুন।   


Step - 3: তারপর 1 লিখে Send বাটনে ক্লিক করুন   


Step - 4: এই বার আপনার নগদ একাউন্ট এর  4 Digit এর Pin Number দিয়ে Send বাটনে ক্লিক করবেন।     


Step - 5: ক্লিক করার পর আপনার সামনে নগদ একাউন্টে কত টাকা আছে তা দেখতে পারবেন। 


নগদ অ্যাপ এর মাধ্যমে Nagad account check

আপনি যদি নগদ একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করার কাজ আরো সহজভাবে দেখতে চান তাহলে নগদের অফিশিয়াল অ্যাপস ব্যবহার করে দেখতেন পারবেন। 

আপনি যদি নগদ অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনার নগদ একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখতে চান তাহলে নিম্নলিখিত নিয়মটা ফলো করেন।    

এটা করার জন্য আপনাকে প্রথমে নগদের অফিশিয়াল অ্যাপস গুগল প্লে স্টোর থেকে ইনস্টল করে নিতে হবে। তারপর নগদ অ্যাপটা ওপেন করবেন এবং আপনার নগদ একাউন্ট নাম্বার ও পিন দিয়ে একাউন্টা লগইন করেন। 

আসা করি সফলভাবে আপনি নগদ একাউন্ট লগইন করতে পেরেছেন। নগদ একাউন্ট লগইন কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর আপনি চাইলে এই অ্যাপস এর মাধ্যমে যে কাউকে এখান থেকে টাকা পাঠাতে পারবেন বা ব্যাংক থেকেও টাকা নিয়ে আসতে পারবেন। অথবা নগদ একাউন্ট এর মাধ্যমে যেকোন বাংলাদেশের ব্যাংকের কার্ডে টাকা জমা ট্রান্সফার করতে পারবেন খুব সহজে এই অ্যাপস ব্যবহার করে। 

যেহেতু আপনি নগদের ব্যালেন্স চেক করে নিতে চান। সেই জন্য নগদের অফিশিয়াল অ্যাপসটাতে প্রবেশ করার পর একদম উপরের মাঝখানে লিখা রয়েছে "ব্যালেন্স জানতে ট্যাপ করুন" এই অপশেনে ক্লিক করলে আপনি জানতে পারবেন আপনার নগদ একাউন্টের বর্তমান ব্যালেন্স কত টাকা রয়েছে।               

   

So, আসা করি উপরের দুইটা পদ্ধতি ফলো করে আপনি সফলভাবে এবং খুব সহজে ও অল্প সময়ে নগদের একাউন্ট দেখার নিয়ম ও নগদের অফিশিয়াল অ্যাপস ও USSD কোড এর মাধ্যমে নগদের ব্যালেন্স চেক করতে পেরেছন।           

নগদ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার

আপনি যদি নগদের মাধ্যমে আপনার ব্যাংক একাউন্টে টাকা পাঠায়েছেন। কিন্তু পাঠানোর তিন দিন পর যদি টাকা ব্যাংক হিসাবে জমা না হয় তাহলে আপনি নগদের কাস্টমার কেয়ারে আপনার সমস্যা নিয়ে তাদের সাথে কথা বলতে হবে। অবশ্যই আপনার নগদ একাউন্ট নাম্বার ও আপনি যে ব্যাংক একাউন্টে টাকা পাঠিয়েছেন সেই ব্যাংকের কার্ড নাম্বারের তথ্য নগদ কাস্টমার কেয়ারের প্রতিনিধিকে জানাতে হবে। 

    

সাধারণ সকল গ্রাহকদের সুবিধার জন্য নগদ দুইটা কাস্টমার কেয়ারের নাম্বার ও একটি ইমেইল তাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া আছে। আপনি চাইলে উপরের ছবি থেকে দুইটা নাম্বারের যেকোন একটায় কল দিয়ে আপনার সমস্যার সমাধান করতে পারবেন। আর যদি আপনার সমস্যা ও টাকার পরিমান অনেক বড় হয় তাহলে আপনি সরাসরি তাদের অফিসের ঠিকানা চলে যাবেন। 


তাদের অফিসের ঠিকানা জানতে আপনি নগদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটের কন্টাক্ট পেজে যাবেন এবং আপনার লোকেশন সিলেক্ট করার পর আপনি খুব সহজে আপনার লোকেশন অনুযায়ী নগদের অফিস পেয়ে যাবেন। তো আসা করি উপরের নিয়মগুলো ফলো করলে খুব তাড়াতাড়ি আপনার সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।               

আমার শেষ কথা

আপনাকে ধন্যবাদ জানাই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটা পড়ার জন্য। আশা করি আজকের আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনারা নগদ একাউন্ট থেকে যেকোন ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার  করুন খুব সহজে তা জানতে পেরেছেন। 

আমি সম্পূর্ণ প্র্যাটিকেল আকারে কিভাবে নগদ থেকে ব্যাংক এর কার্ডে টাকা পাঠানো যায় তা দেখিয়ে দিয়েছি। আর যদি টাকা ব্যাংক হিসাবে জামা না হয় সেই  ক্ষেএে আপনার করনীয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। 

তো, যদি কোন পয়েন্ট বুঝতে না পারেন তাহলে আমাকে নিচের কমেন্ট বক্স এই জানাবেন। তো আজ এই পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন আল্লাহ হাফেজ। 

Shahadat Hossain

সাহাদাত হোসেন একজন প্রযুক্তি ব্লগার ও ওয়েব ডিজাইনার। তিনি দীর্ঘদিন ধরে লেখালেখি ও ফ্রিলান্সার হিসাবে যুক্ত আছেন। সেই ভালো লাগা থেকে তিনি "টুরু লাইন বিডি" ব্লগ সাইটি প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি ব্লগিং সম্পর্কে খুব উৎসাহী তাই আপনাদের জন্য প্রযুক্তি ও বিজ্ঞান সম্পর্কে সবসময় লিখে যাবে।

Previous Post Next Post